স্ট্যাটাস দিয়ে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

বাংলা রিপোর্ট : জন্মদাতা পিতার সাথে অভিমান করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তানভীর আলম তুষার ।

আজ ৭ অক্টোবর বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নগরীর ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সাহেবগঞ্জ এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

তুষার ওই এলাকার ব্যবসায়ী মহসিন আলীর ছেলে। তিনি বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অষ্টম ব্যাচের অর্থনীতি বিভাগে পড়াশুনা করতেন।

স্থানীয়রা জানান, কয়েকদিন ধরে পারিবারিক বিষয় নিয়ে বাবার সঙ্গে মনোমালিন্য চলছিল তুষারের। বৃহস্পতিবার ভোরের দিকে নিজ শয়নকক্ষে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন তুষার।

এর আগে তার ফেসবুক আইডিতে ‘I QUIT for ever’ লিখে স্ট্যাটাস দেন তুষার। আজ বেলা ১১টার দিকে তার চাচাতো ভাই সাব্বির আলম তাকে ডাকতে এসে রুমের দরজা বন্ধ দেখেন। পরে ডাকাডাকি করেও কোনও সাড়া না পেয়ে দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে তুষারকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে।

রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের হারাগাছ থানার ওসি শওকত আলী সরকার বলেন, প্রাথমিক ভাবে খোঁজখবর নিয়ে জানা যায়, তুষার মোবাইলে জুয়া খেলতেন । এ নিয়ে পরিবারের সঙ্গে তার মনোমালিন্য সৃষ্টি হয়।এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তুষার গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন । তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ৭ অক্টোবর ২০২১.