সৈয়দপুরে যৌথ বাহিনীর অভিযানে ৬৫ মেট্রিক টন পলিথিন জব্দ ৩ ব্যবসায়ীকে জরিমানা

মমিন আজাদ : সৈয়দপুরে যৌথ বাহিনীর অভিযানে ৬৫ মেট্রিক টন নিষিদ্ধ পলিথিন জব্দ করা হয়েছে। এসময় অবৈধ পলিথিন রাখার দায়ে ৩ ব্যবসায়ীকে ৩ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

২৬ জুলাই রোববার বিকালে শহীদ জহুরুল হক সড়কে এ অভিযান চালানো হয়। গোপন সুংবাদের ভিক্তিতে র‌্যাব-১৩ সিপিসি-২, এনএসআই এবং পরিবেশ অধিদপ্তর যৌথ এ অভিযানে নেতৃত্ব দেন নীলফামারী জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জায়িদ ইমরুল মোজাক্কির এবং মাহবুব হাসান।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, নীলফামারী জেলার এনএসআইর উপ-পরিচালক খালিদ হাসান, র‌্যাব-১৩ এর সহকারী পুলিশ সুপার ইমরান খান ও পরিবেশ অধিদপ্ততরের সহকারি পরিচালক ফারুক খান, পরিদর্শক সাইফুদ্দিন, স্থানিয় পুলিশ প্রশাসন ও যৌথবাহিনীর সদস্যরা।

অভিযান সূত্রে জানা যায়, শহরের উল্লেখিত সড়কের ওই ৩টি গোডাউন মালিক আজহার উল্লাহ (২৯), আরমান (৩২) ও আবুবক্কর সিদ্দিক (৩০) দীর্ঘদিন ধরে নিষিদ্ধ পলিথিনের ব্যবসা করে আসছিল। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ সৈয়দপুর উপজেলাসহ বিভিন্ন জেলায় এ অবৈধ পলিথিন বাজারজাত করে আসছিল। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটদ্বয়ের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় প্রায় ৩ কোটি টাকা মূল্যের নিষিদ্ধ পলিথিন উদ্ধার করা হয়। পরিবেশ অধিদপ্তর রংপুর জেলার পরিদর্শক কাজী সাইফুদ্দীন উদ্ধারকৃত মালামাল জব্দ করে রংপুর অফিসে নিয়ে যান।

নিষিদ্ধ পলিথিন উৎপাদন ও বাজারজাত করার অপরাধে ১৯৯৫ সালের পরিবেশ আইন মোতাবেক গোডাউন মালিকের প্রত্যেককে ৬ মাসের কারাদন্ড অথবা অনাদায়ে ১ লাখ অর্থদন্ড জরিমানা করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জায়িদ ইমরুল মোজাক্কির বলেন, জেলা প্রশাসকের কার্যালয় হতে নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। নিষিদ্ধ পলিথিন ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে। ২৭ জুলাই ২০২০.