ঢামেক কলেজ চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী-ছাত্রলীগ সংঘর্ষে ঘটনা তদন্ত কমিটি

বাংলা রিপোর্ট :ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী ও কলেজ শাখা ছাত্রলীগের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা তদন্ত করে দেখা হবে। এজন্য তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। আর এই কমিটির দেওয়া প্রতিবেদনের ভিত্তিতে দোষীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালটির পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল নাজমুল হক।

আজ ১১ জানুয়ারি মঙ্গলবার বিকালে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা জানান। এর আগে গতকাল সোমবার (১০ জানুয়ারি) এ সংঘর্ষ বেধেছিলো।এ বিষয়ে হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল নাজমুল হক বলেন, ‘আমরা তাদের (ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী সমিতির) আবেদন পেয়েছি। কলেজ কর্তৃপক্ষ ও হাসপাতাল পক্ষ মিলে একটি তদন্ত কমিটি করা হবে। যারা দোষী সাব্যস্ত হবে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে ঢামেক হাসপাতালের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী সমিতি পরিচালকের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে প্রতিবাদ সভা করে। সেখানে কর্মচারীদের নেতারা বক্তব্য রাখেন।

এর আগের দিন তাদের লোকজনের ওপর হামলার প্রতিবাদ করেন তারা। তারা জানান, তাদের ওপর অন্যায়ভাবে চিকিৎসক ছাত্রলীগ কর্মীরা হামলা করেছেন। তাদের একজন কর্মী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তারা এ হামলার তীব্র প্রতিবাদ করেন এবং বিচার দাবি করেন।

ওই কর্মসূচি থেকে চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী সমিতির নেতারা ৪৮ ঘণ্টার আলটিমেটাম দেন। এর মধ্যে দোষীদের শনাক্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেন। এর বাইরে অন্য কোনও ঘটনা ঘটলে, তার দায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে নিতে হবে বলেও হুঁশিয়ার উচ্চারণ করেন তারা। চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. শিপন মিয়ার স্বাক্ষরিত এক স্মরকলিপি, হাসপাতাল পরিচালক ও কলেজ প্রিন্সিপালের বরাবর জমা দেন। ১১ জানুয়ারি ২০২২.