চাঁদপুরসহ দেশের ৮৮ গ্রামে ঈদুল আজহা উদযাপিত

বাংলা রিপোর্ট: পবিত্র নগরিী সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে চাঁদপুরসহ দেশের ৮৮ টি গ্রামে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে উৎসবমুখর পরিবেশে উদযাপিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল আজহা। হাজীগঞ্জের সাদ্রা দরবার শরীফসংলগ্ন বায়তুল মামুর জামে মসজিদে সকাল পৌনে  আটটায় ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়।ঈদের নামাজে ঈমামতি করেন,সাদ্রা রহমানিয়া মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা কাউছার হামিদ নেছারী। ফরিদগঞ্জের মুন্সিরহাটে প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাড়ে  আটটায়।ঈমামতি করেন মাওলানা মোহাম্মদ আবুল খায়ের। এ সময় শতাধিক মুসল্লি ঈদের জামাতে অংশ নেয়।  পরে ক্রমান্বয়ে ভিন্ন ভিন্ন সময়ে বিভিন্ন মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। হাজীগঞ্জ , ফরিদগঞ্জ,মতলব,কচুয়া ও শাহরাস্তিসহ পাঁচ উপজেলার প্রায় ৪০টি গ্রামে অর্ধ লক্ষাধিক মানুষ আজ আগাম ঈদ উদযাপিত করছে।

এছাড়াওপটুয়াখালীর ২৮ গ্রামের ২৫ হাজার মানুষ আজ ঈদ উদযাপন করবেন। সদর উপজেলার বদরপুর ও ছোট বিঘাই, গলাচিপার সেনের হাওলা, পশুরিবুনিয়া, নিজ হাওলা ও কানকুনিপাড়া, বাউফলের মদনপুরা, শাপলাখালী, রাজনগর, বগা, ধাউরাভাঙ্গা, সুরদী, চন্দ্রপাড়া, দ্বি-পাশা, কনকদিয়া সাবুপুরা, বামনিকাঠী, বানাজোড়া ও আমিরাবাদ এবং কলাপাড়ার দক্ষিণ দেবপুর, পাটুয়া, মরিচবুনিয়া, নাইয়াপট্টি, নিশানবাড়িয়া, শাফাখালী, তেগাছিয়া, ছোনখোলা ও বাদুরতলী গ্রামের মানুষ আগাম ঈদ উদযাপন করবেন। প্রধান নামাজ হবে বদরপুর দরবার শরিফের মসজিদে।

এছাড়া বোয়ালমারীর প্রায় দশ গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ আজ ঈদ উদযাপন করবেন। এর মধ্যে রয়েছে উপজেলার কাটাগড়, সহস্রাইল, মাইটকোমরা, গঙ্গানন্দপুর, রাখালতলী ও সুর্যোগ গ্রাম। কাটাগড়ের বাসিন্দা আলফাডাঙ্গা সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক মাহিদুল হক বলেন, চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার মির্জাখিল শরিফের অনুসারী হিসেবে তারা সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ঈদের নামাজ আদায় করে থাকেন।

অপরদিকে রামগঞ্জ উপজেলার নোয়াগাঁও, জয়পুরা, বিঘা, বারোঘরিয়া, হোটাটিয়া, শারশোই, কাঞ্চনপুর ও রায়পুরের কলাকোপা গ্রামসহ ১০টি গ্রামের প্রায় সহস্রাধিক মানুষ আজ ঈদ উদযাপন করবেন।নামাজ শেষে দেশের শান্তি কামনায় মুনাজাত করা হয়। ৩১ জুলাই ২০২০.

facebook sharing button
twitter sharing button
pinterest sharing button
email sharing button
messenger sharing button
whatsapp sharing button
sharethis sharing button